আলোচিত সংবাদ
সত্যের কথা বলে

বিশ্বকাপজয়ী জুনিয়র টাইগার ক্রিকেটার সজিবের আত্মহত্যা

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য তরুণ ক্রিকেটার সজিবুল ইসলাম সজিব আত্মহত্যা করেছেন। তিনি শনিবার (১৪ নভেম্বর) দিনগত রাতে রাজশাহীর দুর্গাপুরে নিজ ঘরে ফ্যানের সিলিংয়ের সঙ্গে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।
সজিবের স্বজনদের দাবি, আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে সুযোগ না পাওয়ার হতাশা থেকেই আত্মহত্যা করেছে সজিব।
নিহতের বড় ভাই তশিকুল ইসলাম বলেন, সজিবের ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেট খেলার প্রতি অনেক আগ্রহ ছিল। এ জন্য অনেক বকাও খেতে হয়েছে পরিবারের কাছে। এক সময় সে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত খেলোয়াড় হিসেবে গড়ে তুলতে ভর্তি হয় রাজশাহী কাটাখালি ‘বাংলা ট্র্যাক’ নামে একটি ক্রিকেট একাডেমিতে। সেই ক্রিকেট একাডেমির সিইও এবং হেড কোচ হলেন খালেদ মাহমুদ সুজন।
এদিকে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আমি বিশ্বাসই করতে পারছি না সজিবের মতো ভদ্র, প্রতিভাবান একটা ছেলে এমন কাজ করতে পারে। মনটা খুব খারাপ হয়ে গেছে খবরটা শুনে। সে ওপেনার এবং মিডিয়াম পেশার ছিল। শাইনপুকুরের হয়ে ফার্স্ট ডিভিশন খেলেছে। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার ড্রাফটে তার নাম ছিল না। এ জন্য আত্মহত্যা করবে সজিব তা ভাবতেই অবাক লাগছে।’
সজীব অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলে খেলেছেন। তিনি জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়াড় হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়েছিলেন। এমনকি ভারতের বিপক্ষে ৯৫ রানের একটা ইনিংসও আছে তার। সাম্প্রতিক সময়ে সজিব বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তবে প্লেয়ার ড্রাফটে তার নাম না থাকায় কোনো দল পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল না।
এদিকে, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিবারকে লাশ দফনের জন্য অনুমতি দিয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.