আলোচিত সংবাদ
সত্যের কথা বলে

নারায়ণগঞ্জে সমিতির নামে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতারের দাবী

নারায়ণগঞ্জ শহরের বাবুরাইল বৌবাজার এলাকায় সমিতির গ্রাহকদের ১৫ কোটি টাকা আত্মসাৎকারী প্রতারক রমজার আলীকে গ্রেফতারসহ পাওনা টাকার দাবিতে আবারো বিক্ষোভ করেছেন ভুক্তভোগীরা। বুধবার বৌবাজার সড়ক অবরোধ করে দেড় ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ করেন সহস্রাধিক গ্রাহক। 
গ্রাহকদের দাবি, আর্থিক মুনাফা লাভের আশায় জেলার বিভিন্ন এলাকার প্রায় সাড়ে তিন হাজার মানুষ নগদ অর্থ বিনিয়োগ করেছেন সম্মিলিত সঞ্চয় তহবিল নামের ওই সমিতিতে। মাসিক সঞ্চয়, দীর্ঘমেয়াদি সঞ্চয় (ডিপিএস) ও দুই থেকে দশ বছর মেয়াদে (এফডিআর) মোটা অংকের অর্থ বিনিয়োগ তারা। এক লাখ থেকে বিশ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করেছেন কেউ কেউ। গ্রাহকদের মধ্যে অধিকাংশই নারী। চলতি বছরের মার্চ মাসে মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হলে লকডাউনের সময় থেকেই সমিতির সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়।
করোনা পরিস্থিতিকে ব্যবহার করে গ্রাহকদের দশ থেকে পনের কোটি টাকা আত্মসাৎ করে গা ঢাকা দেন রমজান আলী। টাকা ফেরত দেবার আশ্বাস দিয়েও নানাভাবে গ্রাহকদের হয়রানি করছেন তিনি। পাওনা টাকার দাবিতে গত দুই মাস ধরে বিভিন্ন সময়ে প্রতারক রমজান আলীর বাড়ি ঘেরাওসহ বিক্ষোভ করে আসছেন ভুক্তভোগীরা। রমজান আলীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেও এর কোন প্রতিকার হচ্ছে না।
বুধবার বিক্ষোভ চলাকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রাহকদের অভিযোগ শুনে পুলিশ সুপারের সহযোগিতা কামনা করেন স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল করিম বাবু। পাশাপাশি টাকা আদায়ের ব্যাপারে দায়িত্ব নেন প্যানেল মেয়র বিভা হাসান।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.