আলোচিত সংবাদ
সত্যের কথা বলে

দুর্যোগ থেকে উপকূলকে রক্ষায় আগামীতে ১৮ ফুট উঁচু বাঁধ নির্মাণ হবে- পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ।

মোঃ মইনুল হোসেন সুজাতঃ লালমোহন উপজেলার ধলীগৌরনগর ও লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নে চলমান বাঁধনির্মাণ কাজের অগ্রগতি  ও নদী ভাঙ্গন পরিদর্শনে এসে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী লে. কর্নেল (অব:) জাহিদ ফারুক শামীম এমপি বলেন, বন্যা ও জলোচ্ছ্বাসসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে ভোলাসহ উপকূলীয় এলাকাকে রক্ষা করার জন্য বাঁধের উচ্চতা বৃদ্ধি করতে সমীক্ষা চলছে।

সমীক্ষা শেষ হলে বাঁধের উচ্চতা ১৮ ফুট করা হবে। ষাটের দশকে নির্মিত বাঁধের উচ্চতা ১২ ফুট। কিন্তু এখন জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পানির উচ্চতা বেড়েছে। তাই সমীক্ষার আলোকে আগামীতে ১৮ ফুট উচু করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে। গতকাল দুপুরে লালমোহন উপজেলার ধলীগৌরনগর ও লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নে চলমান বাঁধনির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন ও নদী ভাঙ্গন কবলিত এলাকা ঘুরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেছেনঃ বিএনপির সরকার আমলে এ এলাকায় পানি সম্পদ মন্ত্রী ছিল। অথচ এলাকায় বাঁধের কোনো কাজ হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর ভোলায় বেড়িবাঁধের কাজ হয়েছে। খুব শীঘ্রই লালমোহন ও তজুমদ্দিন উপজেলায় উঁচু করে বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক এএম আমিনুল হক, লালমোহন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান রুমি, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম হাওলাদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রাসেলুর রহমানসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাবৃন্দ।

ভোলা-লালোমোহন | ০৫-০৯-২০২০| আলোচিত সংবাদ।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.